Bengali literature (Lecture 16): Jasimuddin

Bengali literature (Lecture 16): Jasimuddin

Bengali literature (Lecture 16): Jasimuddin

জসীম উদ্দীন সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাবলীঃ
১. জন্মঃ ১৯০৩ সালে
২. মৃত্যুঃ ১৯৭৬ সাল
৩. জন্ম স্থানঃ ফরিদপুর জেলার তাম্বুল খানা গ্রামে জন্ম গ্রহন করে
৪. তিনি একজন পল্লি কবি
৫. ডি.লিট (ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয় একুশে পদক পান ১৯৭৬ সালে)
৬. উপন্যাস- বোবা কথা।
৭. কবির শ্রেষ্ঠ রচনা, অনুবাদক- EM Milford ‘Field of the Embroidery Quilt’ (নায়িকাঃ সাজু/ নায়কঃ রুপাই)

কাব্যঃ নকশী কাথার মাঠে, সুজন বাদিয়ার ঘাট, সূচয়িনী, রাখালী (১ম কাব্য), রুপবতী, জলে লেখন, বালুচরের, ধানক্ষেত, মাটির কান্না, কাফনের মিশিল, মা যে জননী কান্দে, হাসু কান্দে
মনে রাখার সহজ কৌশলঃ নকশী কাথার মাঠের পাশে সুজন বাদিয়ার ঘাটে বসে সূচয়িনী রুপাইয়ের রাখালী রুপবতী সাজু জলে লেখন দেখে রুপাইয়ের স্মৃতি।বালুচরের ধানক্ষেত থেকে কানে ভাসে তার মাটির কান্না, চোখে মুধলে কাফনের মিশিল দেখে, পাশে তার মাযে জননী কান্দে, হাসু কান্দে- সাজু যে ফুরিয়ে যাচ্ছে


কবিতাঃ পল্লী জননী, চাষার ছেলে, রাখাল ছেলে, খেলোয়ার, কবর(১১৮টি পঙ্গতি আছে,’কল্লোল’ পএিকায় প্রথম প্রকাশিত
হয়), আসমানী, মুসাফির(বালুচর), নিমএন (ধানক্ষেত) করলো।
মনে রাখার সহজ কৌশলঃ পল্লি জননী ও চাষার ছেলে রাখালী খেলোয়ার ছিল। কবরে যাওয়ার আগে সে আসমানী মুসাফির কে নিমএন করলো।


শিশুতোষঃ হাসু, ডালিমকুমার, এক পয়সার বাশিঁ
মনে রাখার সহজ কৌশলঃ শিশু হাসু ডালিমকুমারকে এক পয়সার বাশিঁ দিল।


ভ্রমনকাহিনীঃ চলে মুসাফির, হলদে পরীর দেশে, যে দেশে মানুষ বড়।
মনে রাখার সহজ কৌশলঃ চলে মুসাফির হলদে পরীর দেশে যে দেশে মানুষ বড়

নাটকঃ পল্লীবধু, মধুমালা, গ্রামের মায়া, পদ্মাপার, বেদের মেয়ে।
মনে রাখার সহজ কৌশলঃ পল্লী বধু মধুমালা গ্রামের মায়া ছেড়ে পদ্মাপার এর বেদের মেয়ে সেজেছে।

আন্তজীবনীঃ ঠাকুর বাড়ির আঙ্গিনায়, জীবন কথা।

গানঃ রাঙ্গলানায়ের মাঝি, জারিগান, গাঙ্গের পাড়,
মনে রাখার সহজ কৌশলঃ রাঙ্গলা নায়ের জারিগান গাইতে গাইতে গাঙ্গের পাড় নিয়া যাও।

No comments.

Leave a Reply

Your email address will not be published.